ভারতে করোনা আক্রান্ত বাড়ছে, কমছে মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: টানা দু’দিন ধরে ভারতে করোনায় দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যায় কিছুটা বৃদ্ধির প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। অন্যদিকে, এ রোগে মৃত্যুর সংখ্যা দিন কে দিন কমছে দেশটিতে।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বুলেটিনে বলা হয়েছে, বুধবারে দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৭ হাজার ২০৮ জন এবং এ রোগে মারা গেছেন ২ হাজার ৩৩০ জন।

আগের দিন মঙ্গলবার ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ৬২ হাজার ২৪০ জন এবং মারা গিয়েছিলেন মোট ২ হাজার ৫৪২ জন। তার আগের দিন সোমবার দেশটিতে নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ৬০ হাজার ৪৭১ জন এবং মৃতের সংখ্যা ছিল ২ হাজার ৭২৬ জন।

এই নিয়ে টানা দশদিন যাবৎ ভারতে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখের নিচে আছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বুলেটিনে বলা হয়েছে, ভারতে চলমান করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণে আসা শুরু করলেও কয়েকটি রাজ্যে এখনও দৈনিক আক্রান্ত ও মৃত্যু পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। এই রাজ্যগুলো হলো মহারাষ্ট্র, তামিলানাড়ু, কর্নাটক, কেরালা, পশ্চিমবঙ্গ ও অন্ধ্র।

এর মধ্যে মহারাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতির কিছুটা অবনতি হয়েছে। বুধবার ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় এই রাজ্যটিতে করোনায় নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ১০ হাজার ১০৭ জন এবং এ রোগে এইদিন সেখানে মরা গেছেন ২৩৭ জন।

তবে আশার কথা হচ্ছে, গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে ভারতে দৈনিক আক্রান্ত রোগীর তুলনায় প্রতিদিন সুস্থ হয়ে ওঠাদের সংখ্যা বেশি হওয়ার যে চিত্র দেখা যাচ্ছে, তা বুধবারও অব্যাহত ছিল।

এই দিন দেশটিতে করোনা থেকে আরোগ্যলাভ করে বাড়ি ফিরে গেছেন ১ লাখ ৩ হাজার ৫৭০ জন। এছাড়া, সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যাও নেমে এসেছে ৮ লাখ ২৬ হাজার ৭৪০ জনে, যা গত ৭১ দিনে সর্বনিম্ন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ভারতে বর্তমানে দৈনিক করোনা পজিটিভ শনাক্তের হার ৩ দশমিক ৪৮ শতাংশ। গত ১০ দিন ধরে এই হার ১০ শতাংশের নিচে আছে।
ভারতে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৩০ জানুয়ারি, কেরালায়। এরপর থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ২ কোটি ৯৭ লাখ ৩১৩ জন এবং এ পর্যন্ত এ রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মোট ৩ লাখ ৮১ হাজার ৯৩১ জন।

তবে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সেরে ওঠাদের সংখ্যাও কম নয় দেশটিতে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত ভারতে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ২ কোটি ৮৪ লাখ ৯১ হাজার ৯৭০ জন।

চলতি বছর ১৬ জানুয়ারি থেকে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু করেছে ভারত। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সূত্রে জানা গেছে, কর্মসূচিতে এ পর্যন্ত দেশজুড়ে ২৫ কোটি ডোজ টিকা ব্যবহার করা হয়েছে। পাশাপাশি, ২০২১ সাল শেষ হওয়ার আগেই দেশের ১০৮ কোটিরও বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনার নতুন লক্ষ্য নিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার- তাও জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া