পুলিশের জেরার মুখে মিঠুন চক্রবর্তী

জনপদ ডেস্ক: জন্মদিনে পুলিশি জেরার মুখে পড়লেন ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা মিঠু চক্রবর্তী। সম্প্রতি শেষ হওয়া বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে মামলা করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। এই মামলায় তাকে জেরা করা হলো।

ভারতীয় একাধিক গণমাধ্যমকে কলকাতা পুলিশ জানিয়েছে, বুধবার সকালে প্রায় ৪৫ মিনিট মিঠুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মিঠুন কবে, কী বক্তৃতা করেছেন তা জানতে চান তদন্তকারীরা। বিজেপির হয়ে তিনি নির্বাচনী প্রচারে যোগ দিয়েছিলেন নাকি তাকে অর্থের বিনিময়ে আনা হয়েছিল, তা-ও জানতে চাওয়া হয় বলে পুলিশ সূত্রে খবর। যে সংলাপগুলি মিঠুন বিজেপির হয়ে নির্বাচনী প্রচারে বলেছিলেন তার পিছনে কারও নির্দেশ ছিল কি না তা-ও জানতে চান পুলিশ আধিকারিকরা। মিঠুন উত্তর দেন, টাকার বিনিময়ে নয়, তিনি বিজেপি-র আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়েই প্রচারে যোগ দিয়েছিলেন। তার মনে হয়েছিল, ওই সংলাপ মানুষের ভীষণ পছন্দের। তাই সেই সব সংলাপ তিনি নির্বাচনী প্রচারে বলেছিলেন। এমনটাই জানা গিয়েছে পুলিশ সূত্রে। মানিকতলা থানা সূত্রে খবর, অভিনেতার বয়ান পুরোটাই রেকর্ড করা হয়েছে।

তার বিরুদ্ধে করা ওই অভিযোগ খারিজের দাবিতে গত ১১ জুন মিঠুন কলকাতা হাই কোর্টের আবেদন করেছিলেন। তবে হাই কোর্ট জানিয়েছিল, তদন্তে সহযোগিতা করতে হবে মিঠুনকে। তবে জিজ্ঞাসাবাদে সশরীরে উপস্থিত হওয়ার বদলে তিনি ভার্চুয়ালি অংশ নিতে পারবেন বলেও জানিয়ে দেয় উচ্চ আদালত। সেই মতো বুধবার মিঠুনকে ভার্চুয়ালি জিজ্ঞাসাবাদ করেন মানিকতলা থানার আধিকারিকরা। হাইকোর্টে ওই মামলার পরবর্তী শুনানি ১৮ জুন।