আবারও দাম বেড়েছে বিটকয়েনের

জনপদ ডেস্ক: বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান টেসলার আবারও বিটকয়েনের লেনদেনে ফিরে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছে। সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক সম্প্রতি এক টুইট বার্তায় এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন। আর এই টুইটের পরে গত দুই সপ্তাহের মধ্যে বিটকয়েনের দাম শীর্ষে পৌঁছেছে।

চলতি সপ্তাহের শুরুতেই বিটকয়েনের মূল্য শতকরা নয় ভাগ বেড়ে এশিয়ায় ৩৯ হাজার ৮৩৮ দশমিক ৯২ ডলারে পৌঁছায় বলে ইকোনমিকস টাইমসের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, টেসলার প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক গত রবিবার (১৩ জুন) এক টুইটে লেখেন, ভবিষ্যতে বিটকয়েন মাইনিংয়ে অন্তত যুক্তিসংগত পরিমাণ অর্থাৎ শতকরা ৫০ ভাগের বেশি বিদ্যুতের ব্যবহার পরিবেশবান্ধব উৎস থেকে ব্যবহার করা হবে- মাইনারদের কাছ থেকে এমন নিশ্চয়তা পেলে টেসলা আবার বিটকয়েন গ্রহণ করবে।

আর এই ঘোষণার পরে বিটকয়েনের মূল্য শতকরা নয় ভাগ বেড়ে যায়। এশিয়ায় এর মূল্য দাঁড়ায় ৩৯ হাজার ৮৩৮ দশমিক ৯২ ডলার। তবে বছরের এ সময়ে এসে বিটকয়েনের দাম বছরের শুরুর তুলনায় শতকরা ৩৩ ভাগ বেশি থাকলেও বছরের সর্বোচ্চ মূল্য ৬০ হাজার ডলারের তুলনায় সেটি এখনও অনেকই কম।

এদিকে ক্রিপ্টো বিশ্লেষণী ওয়েবসাইট কয়েন গেকো’র সহ-প্রতিষ্ঠাতা ববি ওং এ দরবৃদ্ধির পেছনে ইলন মাস্কের প্রভাবের পাশাপাশি সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠান মাইক্রোস্ট্র্যাটেজি’র কথাও উল্লেখ করেছেন। তার ভাষায়, বাজার আরেক সপ্তাহের জন্য সংশোধনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছিল। এর পরপরই ইলন মাস্কের টুইট বিটকয়েন ঘিরে আবেগের জায়গাটি পাল্টে দিল।