রানি মুখার্জির ‘টিনা’ চরিত্রে অভিনয় করলে অপমানিত হতাম: ঐশ্বরিয়া

জনপদ ডেস্ক: ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’ ছবিতে রানি মুখার্জি অভিনীত ‘টিনা’ চরিত্রে ঐশ্বরিয়া রাইকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন পরিচালক করণ জোহর। কিন্তু সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

কেন এমনটা করেছিলেন সাবেক এই বিশ্বসুন্দরী? তার ভাষ্য, ওই ছবিতে কাজ করলে তাকে অপমানিত হতে হতো।

হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, ১৯৯৮ সালে মুক্তি পায় করণ জোহর পরিচালিত ছবি ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’। বক্স অফিসে তুমুল ঝড় তোলে।

পরিচালক হিসেবে করণ ও অভিনেত্রী হিসেবে রানি মুখার্জির কেরিয়ারকেও এক ধাক্কায় বহুগুণ এগিয়ে যায়। ছবির মুখ্য অভিনেতা-অভিনেত্রী তথা শাহরুখ-কাজলকেও এনে দিয়েছিল নানা পুরস্কার।

তবে ওই ছবিতে রানির অভিনীত ‘টিনা’ চরিত্রটির জন্য একাধিক জনপ্রিয় নায়িকাকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন করণ। সেই তালিকায় ছিলেন ঐশ্বরিয়াও।

তবে পরিচালকের সেই প্রস্তাবে রাজি হননি নায়িকা। ভেবেছিলেন যদি তিনি ওই ছবিতে কাজ করতে রাজি হন, তাহলে হয়তো নির্মমভাবে অপমানিত হতে হবে তাকে!

ফিল্মফেয়ারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ঐশ্বরিয়া বলেছিলেন, তখন তিনি ছবির দুনিয়ায় ‘নিউকামার’ হলেও ততদিনে তার সঙ্গে তুলনা হয়ে গেছে তৎকালীন বড় বড়, নামকরা নায়িকাদের সঙ্গে। ওই পরিস্থিতিতে ‘টিনা’ চরিত্রে অভিনয় করলে সবাই বলাবলি করতো যে, মডেলিং দুনিয়ায় যা করেছে, এবার অভিনয়ের জগতে এসেও সেই একই কাজ ফের শুরু করেছে মেয়েটা।

‘মানে বলতে চাইছি, ওই ছবিতে গ্ল্যামারাস অবতার, স্ট্রেট হেয়ার, মিনি স্কার্টস এসব নিয়েই আর কী…’

নায়িকা আরও জানিয়েছিলেন, ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-তে ছবির নায়ক তো শেষপর্যন্ত মূল নায়িকার কাছে ফিরে গেছিল। ফলে সব মিলিয়ে ওই ছবি যদি আমি করতাম তবে একরাশ সমালোচনা ও অপমানের মুখে পড়তে হতো আমাকে!