মোদিকে যে বার্তা দিলেন ইসরায়েলের নতুন প্রধানমন্ত্রী

জনপদ ডেস্ক: দু’বছরে চারবার নির্বাচন এবং দীর্ঘ রাজনৈতিক টানাপোড়েন কাটিয়ে ১২ বছর পর ইসরায়েলের মসনদে নতুন সরকার। বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে হারিয়ে প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন নাফতালি বেনেট। আর মসনদে বসেই ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক আরও মজবুত করার বার্তা দিলেন ৪৯ বছরের দক্ষিণপন্থী এই ইহুদি নেতা।

সোমবার বেনেট জানান, দুই দেশের মধ্যে থাকা ‘উষ্ণ এবং অসামান্য’ সম্পর্ক আরও মজবুত করতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে কাজ করার জন্য অত্যন্ত আগ্রহের সঙ্গে অপেক্ষা করছেন তিনি।

গত রবিবার বেনেটের জয়ের পর টুইট করে নতুন প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান মোদি। তার বক্তব্য, “ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার জন্য আপনাকে অভিনন্দন। আগামী বছর দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের তিরিশ বছর পূর্ণ হবে। আমি আপনার সঙ্গে দেখা করার জন্য উদগ্রীব। দু’দেশের কৌশলগত সম্পর্ককে আরও গভীর করার দিকে তাকিয়ে রয়েছি।”

বেনেটও জানিয়েছেন, তিনি মোদি সরকারের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী। এছাড়া, ইসরায়েলর জোট সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তথা প্রধানমন্ত্রী পদের পরবর্তী দাবিদার ইয়াইর লাপিদও জানিয়েছেন, ভারতের সঙ্গে কৌশিলগত সম্পর্ক মজবুত করার উদ্দেশ্যে কাজ করবে নয়া সরকার।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও ইসরায়েলের সদ্যপ্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর বন্ধুত্ব সুবিদিত। তার আমলে ভারতের সঙ্গে ইসরায়েলের কৌশলগত এবং বাণিজ্যিক সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছায় বলে দাবি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের। শুধু তাই নয়, ভারতের অস্ত্র ভাণ্ডারে আসে বহু ইসরায়েলি অস্ত্র। তবে বেনেটের নতুন সরকারও যে ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখে চলবে তা স্পষ্ট।

উল্লেখ্য, রবিবার ইসরায়েলি সংসদে ভোটাভুটিতে পরাজিত হন নেতানিয়াহু। আট দলের জোট জেতে ৬০-৫৯ ব্যবধানে।