ভারতে আটক চীনা ‘গুপ্তচর’কে ঘিরে পরতে পরতে রহস্য

জনপদ ডেস্ক: কোনও গোয়েন্দা কাহিনীকেও যেন হার মানাবে এই ঘটনা। মালদহের কালিয়াচকে আটক চীনা নাগরিক হান জানুইকে ঘিরে ক্রমেই ঘণীভূত হচ্ছে রহস্য। প্রাথমিক তদন্তের আগেই আটক ওই ব্যক্তিকে চীনা গুপ্তচর বলে দাবি করেছেন তদন্তকারীরা। এবার তাদের আশঙ্কা, হানের শরীরের ভিতরে থাকতে পারে কোনও মাইক্রোচিপ বা ইলেকট্রনিক ডিভাইস। যা নিশ্চিত করতে এবার ওই ব্যক্তির সিটি স্ক্যান করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তদন্তকারীরা। তবে কী কোনও বড়সড় সাইবার হামলার পরিকল্পনা নিয়ে ভারতে ঢুকেছিলেন হান জানুই?

এরই মধ্যে আটক ওই ব্যক্তির কাছ থেকে জব্দ হওয়া ল্যাপটপ ও আইফোন নিয়েও মহাবিপদে পড়েছেন তদন্তকারীরা। পাসওয়ার্ড উদ্ধার করতে কার্যত নাজেহাল অবস্থা তাদের। জানা গেছে, হানের ল্যাপটপ ও আইফোনের পাসওয়ার্ডে মান্ডারিন ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে, যা উত্তর চীনে বেশ প্রসিদ্ধ ভাষা। এছাড়া আরও একটি সোশ্যাল গ্রুপে মান্ডারিন ভাষায় কথোপকথনেরও তথ্য মিলেছে। এখন মান্ডারিন ভাষা জানেন এমন ব্যক্তির খোঁজ করছে পুলিশ। জব্দ ল্যাপটপ ও আইফোন থেকে বহু তথ্য মিলতে পারে বলে মনে করছেন তদন্তকারীরা।

তারা জানিয়েছেন, আটক হান জানুই মোটেই কোনও সাধারণ ব্যক্তি নন। তার কথায় একাধিক অসঙ্গতি খুঁজে পেয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তারা। কেবল আর্থিক প্রতারণা নাকি হানের ভারতে আসার পেছনে রয়েছে আরও বড় কোনও কারণ? সেই রহস্য ভেদ করার চেষ্টা করছেন তারা। মঙ্গলবার তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন মালদহ জেলা পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া ও ডেপুটি পুলিশ সুপার প্রশান্ত দেবনাথ। সূত্র: জিনিউজ