চাঁপাইনবাবগঞ্জে মৃত্যু ২, নতুন শনাক্ত ৩২

নিজস্ব প্রতিবেদক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ: চাঁপাইনবাবগঞ্জের সিভিল সার্জন জাহিদ নজরুল চৌধুরী বলেছেন,স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চললে বিশেষ করে মাস্ক ব্যবহার ও সামাজিক দূরত্ব না মানা দু’সপ্তাহ টানা বিশেষ লকডাউনের পর জেলায় গত কয়েকদিনে উল্লেখযোগ্যহারে কমে আসা সংক্রমণ হার আবারও বাড়াতে পারে।

করোনা সংক্রমণ হার কমাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জে  চলমান ৯ দিনের ‘বিশেষ বিধি নিষেধে’র চতূর্থ দিন শুক্রবার(১১’জুন) জনসাধারণের চলাফেরায় সতর্কতার অভাব পরিলিক্ষিত হয়েছে বলেও তিনি স্বীকার করেন। তিনটি উপজেলায় মাস্ক ব্যবহারে মানুষের অনীহা দেখা গেছে বলেও জানান সিভিল সার্জন।

এদিকে সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সচেতন মানুষ  আতংকিত  থাকলেও এক শ্রেণীর মানুষ কোনক্রমেই সতর্ক হচ্ছেন না। এছাড়া জেলায় সক্রিয় দেড় হাজার রোগী থাকায় সতর্কতায় ঢিলেভাব আবারও সংক্রমণ হার বাড়াতে পারে।  প্রবাসী অধ্যূষিত জেলায়  নারীদের শপিং মলে ভীড়সহ কয়েকটি চিহ্নিত কারণ সংক্রমণের হার আবার বাড়াতে পারে।

এদিকে সিভিল সার্জন জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জে নতুন করে আরও ৩২ জন করোনা ভাইরাসে  (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। শুক্রবার (১১’জুন) রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ আরটি-পিসিআর ল্যাব থেকে আসা ৭২টি নমূণা পরীক্ষায় ১৪ জন শনাক্ত হন। শনাক্ত হার ১৯.৪৪ শতাংশ।

এ ছাড়া জেলাব্যাপী ২১২ জনের র‌্যাপিড এন্টিজেন টেষ্ট করে ১৮ জন শনাক্ত হন। শনাক্ত হার  ৮.৪৯ শতাংশ। ২৮৪টি নমূনার ২ ধরণের পরীক্ষায় নতুন করে ৩২ জন শনাক্ত হয়েছেন। শনাক্ত হার ১১.২৬ শতাংশ।গত বৃহস্পতিবার যা ছিল ১৩.৫১ শতাংশ। সিভিল সার্জন জাহিদ নজরুল চৌধুরী তথ্যগুলো নিশ্চিত করে বলেন,নতুন শনাক্তদের অবস্থান নিশ্চিতে কাজ চলছে। এদিকে শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে আসা প্রতিবেদনে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২ জন পজিটিভ রয়েছেন বলেও জানান সিভিল সার্জন।

এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ড ৫৭ শয্যায় উন্নীত করা হয়েছে বলে জানান ওয়ার্ডের ফোকাল পার্সন ডা. আহনাফ শাহরিয়ার। শুক্রবার সন্ধ্যায়  তিনি বলেন, শয়্যা সংখ্যা ৭টি বাড়িয়ে ৫৭ করা হয়েছে। সকল শয়্যাতেই রোগী রয়েছেন। আরও শয়্যা বাড়াতে কাজ চলছে। সিভিল সার্জন বলেন, করোনা ইউনিটে দ্রুত শয্যা সংখ্যা বাড়িয়ে ৭২ করা হবে।