সু চির বিচার শুরু আগামী সপ্তাহে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেতা অং সান সু চির বিচার শুরু হচ্ছে আগামী সপ্তাহে। সোমবার সু চির আইনজীবীরা সংবাদমাধ্যম এএফপিকে জানান, ১৪ জুন থেকে ২৬ জুলাই পর্যন্ত মামলার বিচারকাজ চলবে বলে আশা করা হচ্ছে।

নোবেলজয়ী মিয়ানমারের রাষ্ট্রনায়কের বিরুদ্ধে লাইসেন্সবিহীন ওয়াকি-টকি রাখা এবং মহামারির নিষেধাজ্ঞা ভেঙে নির্বাচনী প্রচারসহ বেশ কয়েকটি অভিযোগে মামলা করেছে সেনাবাহিনী।

সোমবার অং সান সু চির সঙ্গে বৈঠকের পর এএফপিকে তার আইনজীবী মিন মিন সোয়ে জানান, শুনানি শুরুর পর বাদী ও সাক্ষীদের কাছ থেকে সাক্ষ্য ও তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহ করা হবে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি ক্ষমতাসীন দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) নেতাদের আটক করে সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে সামরিক বাহিনী মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করে। এরপর অং সান সু চিসহ দলীয় নেতাদের বিরুদ্ধে একের পর এক মামলা করে সেনা সরকার।

আল-জাজিরা জানায়, সেনাবাহিনীর হাতে আটক হওয়ার পর থেকে মিয়ানমারের রাজধানী নেপিদোতে গৃহবন্দী আছেন ৭৫ বছর বয়সী অং সান সু চি। ২৪ মে প্রথমবার প্রকাশ্যে হাজির হয়ে আদালতে ৩০ মিনিটের শুনানিতে অংশ নেন তিনি। গৃহবন্দী হওয়ার পর মাত্র দুবার আইনজীবীর সঙ্গে দেখা করার অনুমতি পেয়েছেন সু চি।

এদিকে সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকেই দেশটিতে ব্যাপক বিক্ষোভ এবং আন্দোলন চলছে। আন্দোলনরতদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর হামলায় এ পর্যন্ত অন্তত ৮৪৯ জন নিহত হয়েছে। আটক হয়েছে ৪ হাজার ৫০০ জন।