বোকো হারাম প্রধান আবু বকর শেকাউ নিহত!

জনপদ ডেস্কঃ নাইজেরিয়ার জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট ওয়েস্ট আফ্রিকান প্রভিন্স (আইএসডব্লিউএপি) দাবি করেছে তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী জঙ্গিগোষ্ঠী বোকো হারামের প্রধান নেতা আবু বকর শেকাউ মারা গেছেন। সোমবার (৭ জুন) বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, তারা একটি অডিও রেকর্ডিং শুনেছে যেটি আইএসডব্লিউএপির রেকর্ডকৃত। এতে আবু বকর শেকাউয়ের মারা যাওয়ার খবর নিশ্চিত করা হয়েছে।

ওই অডিও রেকর্ডিংয়ে আইএসডব্লিউএপির নেতা আবু মুসাব আল বার্নাবি নামে চিহ্নিত করা এক ব্যক্তি বলেন, ১৮ মে আইএসডব্লিউএপির সঙ্গে লড়াইয়ের সময় একটি আত্মঘাতী বোমা হামলায় আবু বকর শেকাউ নিজেকে উড়িয়ে দেন।

ওই রেকর্ডিংয়ে আল বার্নাবি আরো বলেন ‘আবু বকর শেকাউ, তাকে বেহেশতে পাঠিয়ে আল্লাহ তার বিচার করেছেন।’ রয়টার্স জানায়, এমন দুই ব্যক্তি যারা বার্নাবিকে চেনেন, তারা ওই রেকর্ড শুনে নিশ্চিত হয়ে রয়টার্সকে জানিয়েছে, কণ্ঠস্বরটি আল বার্নাবির।

এই রেকডিংয়েই আইএসডব্লিউএপি দাবি বলেছে, আবু বকর শেকাউ শাদ হ্রদ অঞ্চলে নিহত হয়েছেন।  রয়টার্স জানায়, আইএসডব্লিউএপি একসময় বোকো হারামেরই অংশ ছিল। পাঁচ বছর আগে গোষ্ঠীটির এক অংশ ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করে আইএসডব্লিউএপি নাম দিয়ে মূল দল থেকে বিচ্ছিন্ন হয়।

নাইজেরিয়ার উত্তরাঞ্চল ও তার প্রতিবেশী দেশগুলোতে সন্ত্রাস ও ভীতির অপর নাম ‘বোকো হারাম’। ২০০৯ সালে বোকো হারামকে বিদ্রোহী একটি সশস্ত্র গোষ্ঠীতে রূপান্তরিত করেন শেকাউ। এই গোষ্ঠীটির হাতে ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত ও প্রায় ২০ লাখ লোক ঘরবাড়ি থেকে পালিয়ে উদ্বাস্তুতে পরিণত হয়, যা বিশ্বের অন্যতম বড় একটি মানবিক সংকট হিসেবে দেখা দেয় বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।