বুরকিনা ফাসোর গ্রামে হামলা চালিয়ে ১৩০ নাগরিককে হত্যা

জনপদ ডেস্ক: পশ্চিম আফ্রিকার দেশ বুরকিনা ফাসোর একটি গ্রামে হামলা চালিয়ে ১৩০ জন বেসামরিক নাগরিককে হত্যা করেছে অস্ত্রধারীরা।

বুরকিনা ফাসো সরকারের বরাতে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, হামলাকারীরা শুক্রবার (৪ জুন) নাইজার প্রদেশ সংলগ্ন ইয়াগহা প্রদেশের সোলহান গ্রামে এই হতাকাণ্ড চালায়। আক্রমণকারীরা রাতে হামলা চালিয়ে বাড়িঘর এবং বাজার জ্বালিয়ে দেয়।

সাম্প্রতিক বছরগুলোর মধ্যে এই হামলা সবচেয়ে নৃশংস আখ্যা দিয়ে বুরকিনা ফাসো সরকার তিনদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট রোস কাবোরে এক টুইটবার্তায় বলেন, ‘শয়তানের সদস্যদের’ বিরুদ্ধে পুরো দেশের মানুষের এক হওয়ার সময় এসেছে। এদিকে সরকার বিবৃতিতে হামলাকারীদের ‘সন্ত্রাসী’ বলে উল্লেখ করলেও এখনো কোনো গোষ্ঠী হামলার দায় স্বীকার করেনি।

এই হামলার ঘটনায় ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। তার মুখপাত্র বলেছেন, ‘আন্তোনিও গুতেরেস এই জঘন্য হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। এমন ধরনের সহিংস উগ্রবাদ এবং এর অগ্রহণযোগ্য অমানবিক হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে সহযোগিতা করার আহবান জানিয়েছেন।’

এদিকে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানায়, চলতি বছরের শুরুতে আফ্রিকার বুরকিনা ফাসো, মালি এবং নাইজার এলাকায় আন্তর্জাতিক জঙ্গি গোষ্ঠী আল-কায়েদা, আইএস গোষ্ঠীর সক্রিয়তা বেড়েছে। বুরকিনা ফাসোর দুর্বল সেনাবাহিনী সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সহিংসতা ঠেকাতে ব্যর্থ হচ্ছে।